Verification: 604f510ca357bb64

ত্বকের সৌন্দর্য বৃদ্ধি ও রূপচর্চায় মুলতানি মাটির উপকারিতা।

মুলতানি মাটির উপকারিতা এক কথায় বলে শেষ করা যাবে না। অনেকের কাছেই আশ্চর্য মনে হলেও এটা কিন্তু সত্য যে শরীরে মাটি মাখলে তার শরীরের টক্সিন দূর করে দেয়। মাটি শরীরে এন্টিসেপটিক হিসেবে কাজ করে। মাটি ত্বকের সৌন্দর্য বৃদ্ধি করে। সেই প্রাচীনকাল থেকে নানাবিধ রূপচর্চায় মুলতানি মাটির ব্যবহার হয়ে আসছে। শুধু ত্বকই নয় চুল কন্ডিশনিং করতে ও চুলের আগা ফাটা দূর করতেও মুলতানি মাটির জুড়ি নেই।

ত্বকের পোড়া ভাব, চোখের চারপাশে কালো দাগ ও চোখের নিচে বলিরেখা, মুখের ব্রণ দূর করা ছাড়াও চুলের যত্নে এই মুলতানি মাটির উপকারিতা লক্ষ্য করা যায়। তাই পৃথিবীর সমস্ত দেশেই রূপচর্চায় মুলতানি মাটির ব্যবহার হতে দেখা যায়। আমাদের বাংলাদেশে আগের দিনের মানুষেরা গোসলের আগে লাল মাটি দিয়ে হাত পা পরিষ্কার করে নিত। মাটি মাথায় মাখত। এতে চুলের ময়লা সহ খুশকি থাকলে দূর হয়ে যেত।

বর্তমানে বিভিন্ন নামিদামি বিউটি পার্লারে বিশেষ করে স্পা এর ক্ষেত্রে বেশি মুলতানি মাটি ব্যবহৃত হয়। যাকে বলে মাড থেরাপি। মুলতানি মাটিতে যে সমস্ত খনিজ উপাদান রয়েছে তা আমাদের ত্বকের জন্য উপকারী ও ক্লিনজার এর মত কাজ করে। এই মাটি ত্বকের ময়েশ্চারাইজারেরও কাজ করে। এই মাটিতে কোন প্রকার কেমিক্যাল না থাকায় সৌন্দর্য চর্চায় অনায়াসেই ব্যবহার করা যায়।

যারা প্রতিনিয়ত ও সৌন্দর্যচর্চা করে থাকেন তাদের নিকট মুলতানি মাটির উপকারিতা অনেক এবং এটি খুবই পরিচিত একটি নাম। এর বহুবিধ কার্যকারিতা ও উপকারিতার জন্য বিখ্যাত। এই মাটির উৎপত্তিস্থল হলো পাকিস্তানের মুলতান প্রদেশ। এজন্যই এই মাটির নাম মুলতানি মাটি হয়েছে বলে জানা গেছে। ঘরোয়া ভাবে রূপচর্চায় মুলতানি মাটি সম্পূর্ণ নিরাপদ এবং খুব কার্যকারী একটি উপাদান।

ম্যাগনেসিয়াম ক্লোরাইড সমৃদ্ধ এই মাটিতে মাটিকে fuller’s Earth বলা হয়। আপনার স্ক্রীন কে ভালো রাখার জন্য যতগুলো অন্যান্য প্রাকৃতিক উপাদান আছে তার মধ্যে মুলতানি মাটি হল অন্যতম। কোমল ও সতেজ ত্বক পাওয়া থেকে শুরু করে মুখের কালো দাগ, ব্রণের দাগ, রোদে পোড়া দাগ দূর করতে অত্যন্ত কার্যকরী এই মুলতানি মাটি। মুলতানি মাটি মুখের অতিরিক্ত তৈলাক্ত ভাব দূর করতে সাহায্য করে। ত্বকে বয়সের ছাপ বা ইলাস্টিসিটি ধরে রাখতে সাহায্য করে। সেই সাথে হেলদি গ্লো নিয়ে আসে ও ত্বকের রঙ উজ্জ্বল করে।

ঘরোয়া রূপচর্চায় মুলতানি মাটির উপকারিতা ও এর ব্যবহারঃ

০১। ত্বকের কালো দাগ দূর করে ত্বক ফর্সা করতেঃ

সাধারণ ত্বক থেকে শুরু করে ড্রাই স্কিনের যত্নে মুলতানি মাটি অত্যন্ত কার্যকরী। ত্বকের সমস্যা দূর করতে আপনি অল্প পরিমাণে মুলতানি মাটির সাথে সামান্য পরিমানে টকদই অথবা কাঁচা দুধ ভালোভাবে মিশিয়ে একটি ঘন করে পেস্ট তৈরি করে নিন। এবার এই পেস্ট টি আপনার ঘাড়ে, গলায়, মুখে, হাতে ও পায়ে লাগিয়ে দশ থেকে পনেরো মিনিটের জন্য রেখে দিন।

চাইলে এই পেস্টের মধ্যে আপনি সমপরিমানে মধু, বেসন ও অ্যালোভেরা জেল মিশিয়েও ব্যবহার করতে পারেন। উপকার পেতে সপ্তাহে অন্তত দুইবার রাতে শোয়ার আগে এই প্যাকটি ব্যবহার করুন। এভাবে নিয়মকরে কিছুদিন ব্যবহার করলে আপনি নিজেই আপনার ত্বকের পার্থক্যটা বুঝতে পারবেন। তাই দেরী না করে আজ থেকেই ব্যাবহার করা শুরু করে দিন।

তবে আপনার ত্বক যদি শুষ্ক হয় তাহলে মুলতানি মাটির ব্যবহার কমিয়ে করাই ভালো। অন্যদিকে তৈলাক্ত ত্বকের জন্য মুলতানি মাটির উপকারিতা অনেক এবং খুবই ভালো কাজ করে। এটি ত্বক থেকে অতিরিক্ত তৈলাক্ত ভাব শুষে নিতে সাহায্য করে। এ জন্য মুলতানি মাটির সাথে গোলাপজল ও শসার রস মিশিয়ে ফেসপ্যাক বানিয়ে তারপর আপনার ত্বকে ব্যবহার করুন।

কারণ এই সবগুলো উপাদানই অয়েলি স্কিনের জন্য ভালো কাজ করে। এই প্যাকটি লাগানোর দশ থেকে পনেরো মিনিট মুখে লাগিয়ে রেখে নরমাল পানিতে মুখ ধুয়ে ফেলুন এবং সপ্তাহে অন্তত দুইবার এই প্যাকটি ব্যবহার করুন। আপনি চাইলে এই প্যাকের সাথে ডিমের সাদা অংশও মিশাতে পারেন। তাহলে মুখে ব্রণ হওয়া কমে যাবে।

০২। রোদে পোড়া ত্বকের জন্য ফেসপ্যাকঃ

আপনার ত্বক যদি রোদে পুড়ে তামাটে বা কালচে হয়ে যায়। তাহলে মুলতানি মাটি ও শসার রসের মিশ্রণ এই সমস্যা থেকে আপনাকে মুক্তি দিতে পারে। এক চামুচ মুলতানি মাটির মধ্যে দুই চামুচ শসার রস মিশিয়ে পেস্ট বানিয়ে নিন। তারপর এই মিশ্রণটি আপনার ত্বকে লাগিয়ে ত্রিশ মিনিট রেখে তারপর মুখ ধুয়ে নিতে হবে। তাহলে রোদে পোড়া ত্বকের অনেক উপকার পাবেন।

০৩। চোখের চারপাশে কালো দাগ দূর করতেঃ

বয়স বাড়ার সাথে সাথে অথবা বিভিন্ন টেনশনে আমাদের চোখের চারপাশে কালি পড়ে যায়। সেই কালি দূর করতেও উপরের তৈরি করা মুলতানি মাটির সাথে শসার রসের মিশ্রণটি ভাল কাজ করে। এই প্যাকটি আপনার চোখের চারপাশে লাগিয়ে দশ মিনিট অপেক্ষা করুন। এরপর পরিস্কার পানি দিয়ে ভালো করে মুখ ধুয়ে নিন। তারপর সাথে সাথে যে কোন একটি লোশন বা ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে ফেলুন।

এতে আপনার চোখের নিচের কালো দাগ দূর হওয়ার পাশাপাশি ত্বকের বলিরেখাও দূর হয়ে যাবে। আরও ভাল উপকার পেতে আপনি মুলতানি মাটির সাথে শসার রস ছাড়াও গোলাপজল কিংবা কাঁচা দুধ মিশিয়েও ব্যাবহার করতে পারেন।

০৪। ত্বক থেকে ব্রণের সমস্যা দূর করতেঃ

ছেলে কিংবা মেয়ে উভয়েরই মুখে অনেক ব্রণ হতে দেখা যায়। এই ব্রণ একবার হওয়া শুরু হলে বাড়তেই থাকে এবং মুখে ব্রনের কালচে দাগ পড়ে যায়। তাদের এই সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে হলে এই মিশ্রণটি ব্যাবহার করলে ব্রনের সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে।

মিশ্রণটি বানাতে গেলে এক টেবিল চামুচ মুলতানি মাটির সাথে একটু চন্দন কাঠের গুঁড়া অথবা চন্দন তেল ও গোলাপজল মিশিয়ে পেস্ট বানিয়ে নিন। তারপর আপনার মুখের যে জায়গা গুলোতে ব্রণ হয়েছে সেখানে লাগিয়ে রাখুন। এভাবে লাগিয়ে রেখে পনেরো থেকে বিশ মিনিট পড়ে হালকা উষ্ণ পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন।

০৫। ত্বক সুন্দর ফর্সা ও উজ্জল করতে এবং ত্বকের গ্লো বাড়াতে মুলতানি মাটির গোপনীয় বিশেষ ফেসপ্যাকঃ

আপনার ত্বকের সৌন্দর্য এবং উজ্জলতা বৃদ্ধি আর ত্বকের গ্লো বাড়ানোর জন্য মুলতানি মাটির উপকারিতা এবং অসাধারণ সব গুণাবলীর কথা পূর্বেই আলোচনা করা হয়েছে। এরপরেও আপনি যদি মুলতানি মাটির সাথে আরো দুই তিনটি উপাদান যোগ করে বিশেষ একটি ফেসপ্যাক তৈরি করে মুখে লাগাতে পারেন। তাহলে আপনার ত্বকের সৌন্দর্য রক্ষায় আর অন্য কোন উপাদান ব্যবহারের প্রয়োজন নেই বললেই চলে।

গোপনীয় এই বিশেষ ফেসপ্যাকটি নিয়মিত ব্যবহারে আপনার ত্বক আগের চেয়ে একদম ম্যাজিকের মতো করে অনেক ফর্সা ও সুন্দর আর উজ্জ্বল হয়ে যাবে। আপনার ত্বকে আলাদা একটা গ্লো ভাব চলে আসবে। চলুন তাহলে দেখে নেই কিভাবে এই বিশেষ ফেসপ্যাক টি তৈরি করবেন।

প্রস্তুত প্রণালীঃ বিশেষ একটি ফেসপ্যাকটি বানানোর জন্য সবার প্রথমে একটি পাত্রে দুই চামুচ মুলতানি মাটি নিয়ে নিন। তারপর এর সাথে দুই চামুচ টক দই ও এক চামুচ মধু মিশিয়ে নিন। আর সব শেষে অ্যাড করুন দুই চামুচ টমেটোর রস। এখন সবগুলো উপাদান ভালকরে মিশিয়ে গুলিয়ে মিক্স করে ফেলুন। ব্যাস এভাবেই তৈরি করা হয়ে গেল মুলতানি মাটি দিয়ে বানানো গোপন বিশেষ ফেসপ্যাক।

ব্যবহার প্রণালীঃ এখন এই মিশ্রণটিকে একটি ব্রাশের সাহায্যে লাগিয়ে আপনার মুখে ও ত্বকে ভাল করে লাগিয়ে নিন। তারপর প্যাকটি আপনার মুখে শুকিয়ে যাওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। যখন প্যাকটি শুকিয়ে যাবে তখন নরমাল পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে পরিষ্কার করে নিন। আর ভাল ফলাফল পেতে চাইলে এই প্যাকটি আপনি সপ্তাহে তিনবার করে ব্যবহার করুন। এই প্যাকটি আপনার ত্বক থেকে রোদে পোড়া কালো দাগ দূর করার সহ চেহারা থেকে বয়সের ছাপকেও দূর করতে সাহায্য করবে।

আশাকরি আপনার ত্বকের সৌন্দর্য বৃদ্ধি ও ত্বকের নানাবিধ রূপচর্চায় মুলতানি মাটির উপকারিতা কতখানি তা নিশ্চই বুঝতে পেরেছেন। 

Leave a Comment

error: Content is protected !!