ঠোটের কালো দাগ দূর করুন মাত্র পাঁচ মিনিটে

156
ঠোটের কালো দাগ দূর
Google search engine

ঠোটের কালো দাগ দূর করুন মাত্র পাঁচ মিনিটে। ঠোট কালো হয়ে যাওয়া হল চেহারার সৌন্দর্য কে নষ্ট করে দেওয়ার একটা প্রধান সমস্যা। কারণ সুন্দর ঠোঁটের একটা হাসি নিমিশেই যে কারও মনকে ভুলিয়ে দিতে পারে। তাই সুন্দর ঠোঁটই পারে আপনার মুখের হাসি কে আকর্ষণীয় করতে।

এই ঠোঁট কালচে হওয়ার সমস্যায় নারী পুরুষ সকলেই ভুগে থাকেন। তবে আপনি জানেন কি ? আপনার কিছু অযত্ন আর অবহেলায় আপনার ঠোঁটের এই সৌন্দর্য নষ্ট হয়ে যায়।

বিশেষ করে চা কফি পান ও ধূমপানের ফলে ছেলেদের ঠোঁট বেশী কালো হয়ে যায়। এছাড়া বংশগত কারনেও ঠোটের কালো দাগ হয়ে থাকে।

নারী পুরুষ সকলেই সুন্দর একটি ঠোঁট পাওয়ার আশা করেন। তাই অনেকেই বিভিন্ন ভাবে চেষ্টা করেন ঠোটের কালো দাগ দূর করার জন্য। কিন্তু কোনো অবস্থাতেই যখন আপনার ঠোঁটের কালো দাগ দূর হয় না। তখন কিছু নিয়ম আর এখানে দেয়া টিপসটি ফলো করে একবার ব্যবহার করেই দেখুন।

মাত্র পাঁচ মিনিটে সম্পূর্ণরূপে আপনার ঠোটের কালো দাগ দূর হয়ে আপনার ঠোঁট হবে একদম বাচ্চাদের মতো তুলতুলে নরম কোমল ও গোলাপি। নিচে ঠোটের কালো দাগ দূর করার কার্যকরী কয়েকটি টিপস বর্ণনা করা হলো।

১। ঠোঁট গোলাপি করতে প্রথমে যে পদ্ধতি এপ্লাই করতে হবে সেটা হল আপনার ঠোঁটের কালচে হয়ে যাওয়া চামড়াটাকে নরম করে নিতে হবে। তারপর সেই কালচে মরা চামড়াটাকে রিমুভ করার মাধ্যমে আপনার ঠোঁটের পূর্বের গোলাপী ভাব ফিরিয়ে আনা হবে। এটি একেবারেই সহজ একটি পদ্ধতি।

এজন্য প্রথমেই একটি পাত্রে এক টেবিল চামচ চিনির পাউডার নিন। চিনি পাউডার বানাতে পাটায় পিষে চিনিটাকে পাউডার করে নিতে পারেন। এখন এই পাউডার টির মধ্যে এক টেবিল চামচ অলিভ অয়েল মিশিয়ে ভালো করে গুলীয়ে নিন।

অলিভ অয়েল এ প্রচুর পরিমানে অ্যান্টি অক্সিডেন্টস থাকায় তা ত্বকের ডেড সেলকে রিমুভ করে ত্বকের দাগ তুলতে সাহায্য করে।

মিশ্রণ দুটি গুলানো হয়ে গেলে একটি ব্রাশের সাহায্যে মিশ্রণটি আপনার ঠোঁটের উপর দুই থেকে তিন মিনিট অনবরত ঘষতে থাকুন। এতে করে আপনার ঠোঁটের অভ্যন্তরে রক্ত চলাচল বৃদ্ধি পাবে।

ঠোঁটের উপরের কালচে চামড়াটা নরম হয়ে সরে যাবে এবং আপনার ঠোঁট আগের চেয়ে অনেক নরম আর মোলায়েম হয়ে যাবে। এভাবে দুই থেকে তিন মিনিট ঘষার পর নরম কাপড় দিয়ে ঘষে ঠোঁট পরিষ্কার করে নিন।

এখন পুনরায় একটি পাত্রে আধা চামচ লেবুর রসের সাথে আধা চামচ মধু মিশিয়ে একটি মিশ্রণ তৈরী করে নিন। ত্বকের যে কোনো দাগ তুলতে মধু খুব কার্যকর একটি উপাদান।

তারপর এই মিশ্রণটি রাতে শুতে যাওয়ার আগে আপনার ঠোঁটে ভালো করে ঘষে লাগিয়ে সারারাত রেখে দিন এবং সকালে ঘুম থেকে উঠে পরিষ্কার পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। আর দেখুন ম্যাজিক।

দেখবেন আপনার ঠোটের কালো দাগ দূর হয়ে দাগ সরে গিয়ে ঠোঁট কতটা গোলাপি হয়ে গেছে। এভাবে ঠোঁটে মধু সারারাত লাগিয়ে রাখার ফলে মধু আপনার ঠোঁটের আর্দ্রতা ধরে রেখেছিল ও লেবুতে থাকে সাইট্রিক অ্যাসিড ঠোঁটের কালো দাগ দূর করে দিয়েছে।

২। ঠোটের কালো দাগ দূর করে ঠোটের গোলাপী ভাব ফিরিয়ে আনার এই ধাপে আপনাকে কিছু পরামর্শ প্রদান করা হচ্ছে। যেগুলো ফলো করে আপনার কালো হয়ে যাওয়া ঠোঁটকে গোলাপি রং এ শতভাগ ফিরিয়ে আনতে পারবেন।

তবে অনেক ক্ষেত্রে ঠোঁটের রুক্ষতা, স্কিন এলার্জি, হরমোনের সমস্যা ও অতিরিক্ত ক্যাফেইন গ্রহণের ফলে ও ঠোঁট কালো হয়ে যায়।

আবার অনেকে আছেন ঠোঁটের রুক্ষতার জন্য সবসময় মুখের লালা দিয়ে ঠোঁট ভিজিয়ে রাখেন। এটা কিন্তু কখনোই করা যাবেনা। ঠোঁটের রুক্ষতা দূর করার জন্য মুখের লালার পরিবর্তে ভালো মানের একটি ভ্যাসলিন ব্যবহার করুন।

এখন ছোট-বড় বিভিন্ন সাইজের ভ্যাসলিন বাজারে কিনতে পাওয়া যায়। আপনার পছন্দমত সাইজের একটি ভেসলিনের কৌটা সব সময় আপনার সাথে রাখতে পারেন।

নিয়মিত একটি মাল্টি ভিটামিন সমৃদ্ধ ময়েশ্চারাইজিং লোশন ঠোঁটে ব্যবহার করুন। তাহলে বিশেষ করে রাতে শোয়ার আগে এই ময়েশ্চারাইজিং লোশন ঠোঁটে লাগানোর অভ্যাস তৈরি করুন।

এছাড়া আমাদের প্রত্যেকের ঘরেই কমবেশি কিসমিস থাকে। আপনি রাতে শোয়ার সময় আট থেকে দশটি কিসমিস একটি পাত্রে সামান্য পানিতে ভিজিয়ে রেখে দিন। তারপর সকালে ঘুম থেকে উঠে এই কিসমিস ভেজানো পানিটা আপনার ঠোটে ঘষুন।

কিসমিসে থাকা ভিটামিন-এ, পটাশিয়াম আর ফসফরাস আপনার ঠোটের কালো দাগ দূর করে ঠোঁটকে গোলাপি করে তুলতে সাহায্য করবে।

আপনার কালচে হয়ে যাওয়া ঠোটকে গোলাপি করে তুলতে উল্লেখিত নিয়মগুলি ফলো করুন। তাহলে ধীরে ধীরে আপনার ঠোট বাচ্চাদের মত গোলাপি হয়ে উঠবে তাড়াতাড়ি।ঠোটের কালো দাগ দূর

ঠোটের কালো দাগ দূর করতে আরও কিছু পরামর্শঃ

ঠোঁটে ভ্যাসলিন ব্যবহারের ক্ষেত্রে ভালো মানের ভেসলিন ব্যবহার করা উচিত। মহিলাদের নিয়মিত লিপস্টিকের ব্যবহার করতেই হয়।

অনেকে কম দামি লিপস্টিক ব্যবহারের ফলে অনেক সময় ঠোঁট কালো হয়ে যায়। তাই লিপস্টিক ব্যবহারের ক্ষেত্রে ভালো ব্র্যান্ডের লিপস্টিক ব্যবহার জরুরী।

কারণ ভালো মানের লিপস্টিকে ময়েশ্চারাইজিং ব্যবহার করা হয়। তবে লিপস্টিক দেওয়ার আগে ঠোঁটে যদি নারিকেল তেল ঘষে নিতে পারেন তাহলে ঠোঁট ভালো থাকবে। ঠোটের কালো দাগ দূর করতে বেশি বেশি ভিটামিন- সি সমৃদ্ধ খাবার গ্রহণ করুন।

শশা, বিট, গোলাপজল এগুলো ত্বক থেকে যে কোনো দাগ তুলতে পারে। বিট ও শশা ব্লেনড করে রস ঠোটে লাগালে দাগ চলে যাবে। আবার আপনার ঠোঁটের স্কিনও ভালো থাকবে।

Google search engine
পূর্ববর্তী আর্টিকেলমাত্র ৩০ দিনে চুল লম্বা ও ঘন করার সহজ উপায়।
পরবর্তী আর্টিকেলNID Online Copy বের করা ও হারিয়ে যাওয়া NID পাওয়ার জন্য Online এ আবেদন প্রক্রিয়া

একটি মন্তব্য করুন

এখানে আপনার মন্তব্য লিখুন
অনুগ্রহপূর্বক আপনার নাম লিখুন