১০০% খাঁটি এক্সট্রা ভার্জিন নারিকেল তেল তৈরির সিক্রেট টিপস

45
১০০% খাঁটি এক্সট্রা ভার্জিন নারিকেল তেল তৈরির সিক্রেট টিপস
১০০% খাঁটি এক্সট্রা ভার্জিন নারিকেল তেল তৈরির সিক্রেট টিপস
Google search engine

চুল পড়া বন্ধে ১০০% খাঁটি এক্সট্রা ভার্জিন নারিকেল তেল তৈরির সিক্রেট টিপস। যা আপনি তৈরি করুন ঘরে বসে মাত্র আধা ঘণ্টায়। আমরা চারিদিকে তাকালেই দেখতে পাব সর্বত্রই যেন ভেজালের ছড়াছড়ি। কোনটা যে আসল আর কোনটা যে নকল তা বুঝা খুব মুশকিল।

তাই আমরা চাইলে নিজেরাই ঘরে বসে ভেজাল মুক্ত শতভাগ খাঁটি এক্সট্রা ভার্জিন নারিকেল তেল বানিয়ে নিতে পারি। চলুন জেনে নেই কিভাবে এই খাঁটি এক্সট্রা ভার্জিন নারিকেল তেল তৈরি করবেন তার সিক্রেট টিপস।

প্রথমে আপনাকে বাজার থেকে সুন্দর দেখে ৫ টি বড় সাইজের নারিকেল কিনে আনতে হবে। তারপর সেগুলো থেকে পানি বের করে ভাল একটা নারিকেল কুড়ানি দ্বারা কুড়িয়ে সাদা অংশগুলো আলাদা একটা পাত্রে নিয়ে নিতে হবে। এখন একটি ব্লেন্ডারে কুড়ানো নারিকেল সমূহ ঢেলে তার মধ্যে দেড় থেকে দুই কাপ পরিমান হালকা কুসুম গরম পানি দিয়ে ব্লেন্ড করে নিন।

এভাবে ব্লেন্ড করার ফলে নারিকেলগুলো ভেঙ্গে গুড়া হয়ে দুধের মত ঘন একটা মিশ্রণ তৈরি হবে। এখানে মনে রাখতে হবে যে, যত ভাল করে ব্লেন্ড করবেন আপনার নারিকেল তেলের মানটাও তত ভাল হবে।

এখন এই ব্লেন্ড করা সম্পূর্ণ মিশ্রণটি একটি পরিস্কার পাত্রের মধ্যে চালুনি দিয়ে ছেকে নারিকেল দুধটাকে আলাদা করে ফেলতে হবে। প্রয়োজনে চালুনির উপর একটা সুতী কাপড় দিয়ে ছেকে নিতে পারেন। তাহলে দুধটার মধ্যে কোন দানা অবশিষ্ট থাকলেও তা দুধ হতে আলাদা হয়ে যাবে। সুতি কাপড়টি পোটলার মত করে ধরে ভালকরে চিপে চিপে রসগুল বের করে নিতে হবে।

অবশিষ্ট দানাদার অংশগুলোকে পুনরায় ব্লেন্ডারে কুসুম গরম পানি মিশিয়ে ব্লেন্ড করে পূর্বের ন্যায় ছেঁকে নিলে আরও কিছুটা দুধ পাওয়া যাবে।

এভাবে সম্পূর্ণ দুধ বের করা হয়ে গেলে দুধ সহ পাত্রটিকে ফ্রিজের নরমালের মধ্যে সাত থেকে আট ঘণ্টার জন্য জমাট বাঁধার জন্য রেখে দিতে হবে। সাত থেকে আট ঘণ্টা পর পাত্রটি বের করে নিলে দেখা যাবে দুধ হতে পানিটা সম্পূর্ণ আলাদা হয়ে গেছে।

অর্থাৎ পানিটা নিচে থেকে যাবে আর দুধটা উপরে জমাট বাঁধা অবস্থায় থাকবে। এখন এই জমাট বাঁধা অংশটুকু তুলে আলাদা একটা পাত্রে ছেঁকে সাবধানে সরিয়ে নিতে হবে। প্রয়োজনে পুনরায় একটি ছাকনি দিয়ে ছেকে নিতে পারেন। এই দানাদার শক্ত অংশগুলিই হল আমাদের নারিকেল তেল তৈরির মূল উপাদান।

এখন এই ঘন দানাদার অংসগুলো একটি প্যানের মধ্যে ঢেলে নিয়ে চুলায় রেখে মিডিয়াম আঁচে গরম করুন। আর নাড়তে থাকুন। যখনই বলক উঠতে যাবে তখনই চুলার হিট কমিয়ে দিতে হবে। এভাবে গরম করতে থাকুন আর নাড়তে থাকুন। এভাবে যত নাড়তে থাকবেন ততই ঘন হতে থাকবে আর ভেতর থেকে তেলটা বের হয়ে আসতে থাকবে।

এভাবে নাড়তে নাড়তে দানাগুলো যখন একটু ব্রাউন কালার ধারণ করতে থাকবে আর ফেনা ফেনার সৃষ্টি হবে তখন বুঝতে হবে সম্পূর্ণ নারিকেল তেল বের হয়ে এসেছে। এ অবস্থায় চুলার হিট পুরাপুরি কমিয়ে বন্ধ করে দিতে হবে। তারপর তেলগুলো একটি ঘন ছাকনি দিয়ে আলাদা একটা পাত্রে ছেকে নিতে হবে। আর এভাবেই আপনি পেয়ে যাবেন শতভাগ ভেজালমুক্ত খাঁটি নারিকেল তেল।

যারা ভেজালমুক্ত খাঁটি নারিকেল তেল পেতে চান তারা এই নিয়মে নিজেরাই ঘরে বসে বানিয়ে ফেলুন ১০০% খাঁটি এক্সট্রা ভার্জিন নারিকেল তেল। আর সেই তেল চুলে ব্যাবহার করে চুলকে করে তুলুন ঘন কাল সুন্দর ও স্বাস্থ্যসম্মত।

নারিকেল তেল

Google search engine
পূর্ববর্তী আর্টিকেলঘরোয়া ভাবে চুল সিল্কি করার উপায়
পরবর্তী আর্টিকেলখুশকি দূর করার উপায় ঘরোয়া ভাবে মাত্র একবার ব্যাবহারে

একটি মন্তব্য করুন

এখানে আপনার মন্তব্য লিখুন
অনুগ্রহপূর্বক আপনার নাম লিখুন